পুতিন এ সাক্ষাতের প্রথম রুদ্ধদ্বার বৈঠকে সেপ্টেম্বর মাসে সাঙ্কত-পিতারবুর্গে “জি-২০” দেশগুলির শীর্ষ সাক্ষাতের ফলাফল সম্পর্কে রিপোর্ট দেবেন. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সহকার ইউরি উশাকোভ বলেন যে, মোটামুটিভাবে, এ বৈঠক উত্সর্গীত হবে আঞ্চলিক অর্থনীতি এবং বহুপাক্ষিক বাণিজ্য ব্যবস্থা সুদৃঢ় করায় এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় আঞ্চলিক সহযোগিতা সংস্থার ভূমিকার প্রতি. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি তাছাড়া “এশীয়-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে স্থিতিশীল ও দীর্ঘমেয়াদী অর্থনৈতিক বিকাশের নতুন নতুন উত্স” বিষয়ে সংস্থার কারবারী বৈঠকে বক্তৃতা দেবেন. এ সম্মেলনের কাঠামোতে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির কয়েকটি দ্বিপাক্ষিক সাক্ষাতের পরিকল্পনা করা হয়েছে: জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিন্দজো আবে, ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি সুসিলো ইউদোইওনো এবং চীনের সভাপতি সি জিনপিনের সাথে.