কেরির কথায়, প্রয়োজন, যাতে ইরান একসারি প্রস্তাব দেয়, যা বিশ্ব জনসমাজকে প্রদর্শন করবে যে, তার পারমাণবিক কর্মসূচি শান্তিপূর্ণ. তিনি যোগ করে বলেন যে, ইরান উপযুক্তভাবে উত্তর দেয় নি সেই প্রস্তাবের, যা মধ্যস্থ “ছয় দেশ” আলমা-তায় ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে আলাপ-আলোচনায় উত্থাপন করেছিল. এর প্রাক্কালে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিফ বলেন যে, পশ্চিমী দেশগুলির ইরানের পারমাণবিক সমস্যার মীমাংসা সম্পর্কে নতুন প্রস্তাব নিয়ে আলাপ-আলোচনার টেবিলে বসা উচিত্. ইরানের কাছে পশ্চিমী দেশগুলির আগের প্রস্তাব অনুযায়ী, ইরানের ইউরেনিয়াম ২০ শতাংশ পর্যন্ত পরিশোধন করায় থামা উচিত্, যা তেহেরানের প্রস্তাব অনুযায়ী, গবেষণা কাজের উদ্দেশ্য প্রয়োজন, আর তাছাড়া ফোর্দু কারখানায় পরিশোধনের কাজ বন্ধ করার.