বিস্ফোরক ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল শহরের কেন্দ্রীয় মুহান্দেস্সিন পাড়ায় “আমোন” হোটেলের কাছে, যেখান দিয়ে গিয়েছে বড় মোটর-পথ. সেনাবাহিনী জানিয়েছে যে, সবকিছু বিচার করে মনে হচ্ছে যে, সন্ত্রাস নির্দেশিত ছিল সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে, কারণ এ জায়গার পাশেই সেনাবাহিনীর একটি কেন্দ্র অবস্থিত এবং সেখানে রয়েছে সাঁজোয়া গাড়ি. ৬ই অক্টোবর মিশর পালন করবে ১৯৭৩ সালে চতুর্থ আরব-ইস্রাইলী যুদ্ধ শুরু হওয়ার ৪০তম বার্ষিকী. যদিও এ যুদ্ধে মিশর হেরে গিয়েছিল, তবুও এ দিনটি দেশে পালিত হয় সশস্ত্র বাহিনীর দিবস হিসেবে. ঐ দিন ইস্লামপন্থীদের তরফ থেকে সম্ভাব্য সন্ত্রাস ও অন্তর্ঘাতের খবর আসা উপলক্ষে রাজধানী এবং দেশের অন্যান্য শহরে নিরাপত্তার বাড়তি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে.