বাংলাদেশের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটারে নিউক্লিয়ার ইন্ডাস্ট্রি ইনফরমেশন সেন্টার নামের এই তথ্য কেন্দ্র উদ্বোধন করেন। তথ্য কেন্দ্র স্থাপনে সহায়তা করে রাশিয়ান ফেডারেশন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাশিয়ার পরমাণু প্রযুক্তি বিষয়ক সংস্থার (রোসাতম) পরিচালক সার্গেই ভি কিরিয়েনকো, ঢাকায় নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকসান্দর নিকোলায়েভ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক প্রমুখ।

এ তথ্য কেন্দ্র থেকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র সম্পর্কে সব ধরণের তথ্য পাওয়া যাবে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে রাশিয়ায় মোট ১৬টি পরমাণু তথ্য কেন্দ্র রয়েছে। সর্বপ্রথম ২০০৮ সালে তমস্ক শহরে প্রথম পরমাণু তথ্য কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়।

প্রতিটি তথ্য কেন্দ্র হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর এক একটি মাল্টিমিডিয়া সিনেমা থিয়েটারের মত। ঢাকার ওই তথ্য কেন্দ্রে প্রজেক্টরের মাধ্যমে ভিডিও ডকুমেন্টারি দেখা যাবে। এই সিস্টেমের সঙ্গে কম্পিউটার গ্রাফিক্স, এ্যানিমেশন, স্টেরিও সাউন্ড ও ৬টি আন্তঃপারস্পরিক যোগাযোগ মনিটর সংযুক্ত আছে। তথ্য কেন্দ্র দুটি হল রুম রয়েছে।