“ভালদাই” ক্লাবের বক্তৃতায় তিনি আরও বলেছেন যে, “প্রত্যেক দেশ, প্রত্যেক জাতিই বিশিষ্ট কিন্তু অনন্য নয়, তাদের সকলেরই নিজের মতো করে বাঁচার অধিকার রয়েছে ও সকলেরই সমানাধিকার রয়েছে, তার মধ্যে নিজেদের বিকাশের গতি প্রকৃতি নির্ণয় করা নিয়েও”. পুতিন ঘোষণা করেছেন যে, বর্তমানে দেখা যাচ্ছে কোন না কোন ভাবে বিশ্বের এক মেরু বিশিষ্ট গঠনকে পুনরুদ্ধারের ও আন্তর্জাতিক আইন ও জাতীয় সার্বভৌমত্বকে ঘুলিয়ে দেওয়ার প্রচেষ্টা. “এই ধরনের এক মেরু বিশিষ্ট ও সকলকে একই ছত্রছায়ার নীচে নিতে চাওয়া বিশ্বে কোন সার্বভৌম রাষ্ট্রের প্রয়োজন নেই, তাদের প্রয়োজন স্তাবক রাষ্ট্রের”, - বিশেষ করেই তিনি উল্লেখ করেছেন.