এ উপলক্ষে তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত গ্রহণের আশা করা কঠিন, যার জন্য আহ্বান জানিয়েছিলেন রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ সম্পাদক বান কি মুন, মনে করেন বিশেষজ্ঞরা. এ দলিলের খসড়া মঙ্গলবার আলোচিত হয় নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি স্থায়ী সদস্যের বৈঠকে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের কূটনৈতিক মহলে সাংবাদিকদের জানানো হয়েছে যে, রাশিয়া এ বৈঠকে খসড়া সিদ্ধান্তের সেই ধারার বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করেছে, যা অনুযায়ী দামাস্কাসের বিরুদ্ধে বল প্রয়োগ অনুমিত ভীতি প্রদর্শনের ব্যবস্থা হিসেবে, যা রাষ্ট্রপতি বাশার আসদ-কে সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণে হস্তান্তর করা এবং পরবর্তীতে তা ধ্বংস করা সম্পর্কে বাধ্যবাধকতা পালনে উদ্বুদ্ধ করবে. রাশিয়ার পক্ষ তাছাড়া সিদ্ধান্তে এ ধারা অন্তর্ভুক্ত করার বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করেছে, যাতে সিরিয়ার কর্তৃপক্ষের উপর দায়িত্ব আরোপিত হচ্ছে ২১শে আগস্ট দামাস্কাসের উপকণ্ঠে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের এবং তা অনুযায়ী এ বিষয়টি আন্তর্জাতিক আদালতে পেশ করার. রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকোভ “ইন্টারফাক্স” সংবাদ এজেন্সিকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের নিজের ভূমিকা পালন করা উচিত্, যাতে সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধ্বংস করা নিয়ে প্রায়োগিক কাজ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুরু করা যায়.