ইরান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ার ঘটনাবলিকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা বৃদ্ধি উপলক্ষে যোগাযোগ বজায় রাখছে. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার জানিয়েছে “ইসনা” সংবাদ এজেন্সি ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাওয়াদ জরিফের উক্তি উদ্ধৃত করে. সাংবাদিকদের সাথে আলাপে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও যোগ করে বলেন, “প্রয়োজনের ক্ষেত্রে এ প্রক্রিয়া চালিয়ে যাওয়া হবে”. ইরান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মাঝে ৩০ বছরের উপর কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই. তেহেরান সরকারীভাবে দামাস্কাসের পক্ষে এবং সশস্ত্র বিরোধীপক্ষের বিরুদ্ধে তার সশস্ত্র বিরোধিতার পক্ষে মত প্রকাশ করছে এবং সিরিয়ার উপর মার্কিনী রকেট ও বোমার আঘাত হানার পরিকল্পনার বিরুদ্ধে চূড়ান্ত প্রতিবাদ জানাচ্ছে. বিশেষ করে, ইরানের নেতৃবৃন্দ একাধিকবার ওয়াশিংটনকে সতর্ক করে দিয়েছে সিরিয়ার বিরুদ্ধে আগ্রাসনের বিপজ্জনক পরিণতি সম্বন্ধে যেমন গোটা নিকট-প্রাচ্য অঞ্চলের জন্য, তেমনই খাস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য.