টোকিও এই প্রতিদ্বন্দিতায় মাদ্রিদ এবং ইস্তাম্বুলকে পেছনে ফেলে দিয়েছে। প্রথম পর্বের ভোটে টোকিও টপকে গিয়েছিল মাদ্রিদ ও ইস্তাম্বুলকে। সেমিফাইন্যালে মাদ্রিদ ছিটকে গেছিল আর ফাইন্যাল পর্বের ভোটাভুটিতে টোকিও পেয়েছে ৬০টি ভোট আর ইস্তাম্বুল ৩৬টি।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিনজো আবে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি ও বিশ্ব জনসমাজকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জাপানকে এরকম দায়িত্ব দেওয়ার জন্য।আবে বলেছেন, যে তিনি বিধ্বংসী ভূমিকম্পের পরে গোটা বিশ্বের সমর্থন অনুভব করেছেন।