‘মুসলিম ব্রাদারহুড’কে বেআইনি ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত মিশরের সরকার এখনো নেয়নি. ক্যাবিনেট মন্ত্রীসভার প্রেস সচিব শেরিফ শৌকি শুক্রবার কায়রোয় সাংবাদিক-সম্মেলনে এই বিবৃতি দিয়েছেন. স্থানীয় সংবাদপত্র ‘আল-আকবর’ প্রকাশিত খবরেরই এই প্রতিক্রিয়া. আজ সকালে সংবাদপত্রটি সামাজিক সংহতি মন্ত্রকের সূত্র ধরে জানিয়েছিল, যে মুসলিম ব্রাদারহুডকে বেআইনি ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই গৃহীত হয়েছে এবং কয়েকদিনের মধ্যেই সেটা কার্যকর করা হবে. ‘মুসলিম ব্রাদারহুডে’র অধিকাংশ নেতাই আটক হয়ে রয়েছেন কায়রোর শহরতলীতে ‘টোরা’ কারাগারে.