টাইমস অফ ইন্ডিয়া সংবাদপত্র লিখেছে, যে ভারতের রিজার্ভ ব্যাঙ্ক দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মন্দিরগুলির কাছে মজুত সোনার হিসাব দেওয়ার দাবী পেশ করেছে. ইতিপূর্বে প্রধানমন্ত্রী ডঃ মনমোহন সিং মন্তব্য করেছিলেন, যে ব্যাপক পরিমাণে খনিজ তেল ও সোনার আমদানী দেশের বহির্বাণিজ্যের ভারসাম্য নষ্ট করে দিচ্ছে. তাঁর কথায় সরকার আমদানী কমাতে চায়, এবং অংশত, মন্দিরগুলির কাছ থেকে সোনা ক্রয় করে. তবে এইমুহুর্তে সরকার অস্বীকার করছে, যে সোনা কিনবে.

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলে হিন্দু মন্দিরগুলিতে পাহাড়প্রমাণ স্বর্ণবস্তু মজুত আছে. ওখানে সেই পুরাতনকাল থেকেই সোনা জমা হচ্ছে. মুসলিম লুঠেরারা ভারতের দক্ষিণাঞ্চল পর্যন্ত পৌঁছায়নি, আর ধনী ধর্মপ্রাণারা সোনা দান করেই চলেছে. ২০১১ সালের জুলাইয়ে কেরালা রাজ্যের পদ্মনাভাস্বামী মন্দিরে যে মজুত সোনা ও প্রাচীন বস্তুসামগ্রীর হদিস পাওয়া গেছিল, তার মূল্য ১৫০০ কোটি ডলারের বেশি.