এই ঋণ ইদানীং প্রায় শূন্য হতে যাওয়া পাকিস্তানের রিজার্ভ ব্যাঙ্কের বিদেশী মুদ্রা তহবিল মজবুত করবে। তবে পাকিস্তানকেও হলফনামা দিতে হয়েছে, যে অবিলম্বে দেশে কর ফাঁকি দেওয়া বন্ধ করতে হবে এবং জ্বালানী শক্তি সেক্টরের খোলনলচে ধরে সংস্কারসাধন করতে হবে।

আইএমএফ-এর বিশেষজ্ঞদের মতে বর্তমান সমস্যা থাকা সত্বেও পাকিস্তানের অর্থনীতির ব্যাপক সম্ভাবনা বিদ্যমান এবং এই ঋণ তাদের জন্য উপযোগী হবে।