এর ঠিক প্রাক্কালে মিশরের পুলিশ গ্রেফতার করেছে মুসলিম ব্রাদারহুডেরই একটি উইং- ‘পার্টি ফর ফ্রিডম অ্যান্ড ডেমোক্র্যাসি’র চেয়ারম্যান সাআদ আল-কাতাতনি ও আরও এক শীর্ষস্থানীয় নেতা রাশাদ আল-বায়ুমিকে. তাদের রাখা হয়েছে কায়রোর শহরতলীতে অবস্থিত তোরা জেলে, যেখানে হোসনি মুবারক ও তার ছেলেরাও রয়েছে. সবসুদ্ধ এইযাত্রায় মুসলিম ব্রাদারহুডের প্রায় ৩০০ কর্মীকে গ্রেফতার করার ফরমান জারি করা হয়েছে. উপরন্তু ইসলামিদের সমস্ত টেলি চ্যানেল থেকে সম্প্রচার সংযোগবিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়েছে. বেসরকারি সংস্থা হিসাবে নথিভুক্ত মুসলিম ব্রাদারহুডকে অবৈধ ঘোষণা করার মামলার শুনানী অনুষ্ঠিত হবে ১২ই নভেম্বর.