শুক্রবার সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয় থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়, “যুক্তরাষ্ট্র ইতিহাসের মনগড়া প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।“

এর আগে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন করি জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের তৈরী করা ওই প্রতিবেদন তৈরীর আগে কয়েক হাজার নথিপত্র সংগ্রহ করা হয় এবং গোয়েন্দা বিভাগের শীর্ষ বিশেষজ্ঞদের নিয়ে প্রতিবেদন তৈরী করা হয়।