মার্কিন বিদেশ সচিব জন কেরি বলেছেন, যে অপরাধের জন্য রাষ্ট্রপতি বাশার আল-আসাদই যে দায়ী - আমেরিকার কাছে সেরকম নির্দিষ্ট সাক্ষ্যপ্রমাণ আছে. আগামী কয়েকদিনের মধ্যে মার্কিন রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামার প্রশাসন একে সিরিয়ার উপর আঘাত হানার অযুহাত বলে ব্যবহার করতে চাইছে. যদিও আমেরিকা সিরিয়ার ওপর আকাশ থেকে আঘাত করা রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করার প্রত্যুত্তর হিসাবে গণ্য করছে, তবে জন কেরির মতে, এতেই সিরিয়ায় সংকটের সমাধান হবে না. মার্কিন বিদেশ সচিব বলেছেন – “আমরা বুঝতে পারছি, এই সংকটের সামরিক মীমাংসা সম্ভব নয়, প্রয়োজন রাজনৈতিক মীমাংসার, সেজন্য আলাপ-আলোচনার টেবিলে বসতে হবে” – বলেছেন কেরি.