তার মধ্যে আছে রাসায়নিক আঘাত হানার হেড-কোয়ার্টার, বিভিন্ন শাখা-প্রশাখা আর তাছাড়াও সিরিয়ার গুপ্তচর বিভাগের সব দপ্তরগুলি এবং বাশার আল-আসাদের রাষ্ট্রপতি ভবন. রাসায়নিক অস্ত্রের গুদামগুলিতে, হিসাব মতো, যাদের সংখ্যা পঞ্চাশাধিক, তাদের উপর আঘাত না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পেন্টাগন.

‘ওয়াশিংটন পোস্ট’ লিখেছে, যে আকাশ থেকে আঘাত হানার পর্ব ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টা পর্যন্ত চলতে পারে.