পুলিশ জানায়, সালিম মুম্বাই থেকে নয়া দিল্লী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পথে তাকে আটক করা হয়। এর আগে রোববার ভোরে কাসিম বাঙ্গালি নামে আরেক অপরাধীকে মোম্বাইয়ের শাক্তি মিলস এলাকা থেকে আটক করে পুলিশ।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মুম্বাইয়ের নামা পারেল এলাকার এক পরিত্যাক্ত কাপড়ের মিলে ২২ বছর বয়সী ওই ফটোসাংবাদিককে ধর্ষণ করে পাঁচ পাষণ্ড। এ সময় সাংবাদিকের সঙ্গে থাকা ছেলে বন্ধুকে বেঁধে রাখে পাষণ্ডরা। তাকে মারধরও করা হয়। তরুনী যশলোক হাসপাতালে আপাতত চিকিৎসাধীন রয়েছে। চিকিৎসকরা তার শারিরীক অবস্থার উন্নতির কথা জানাচ্ছেন।

গত ডিসেম্বরে প্রায় একই ধরনের ঘটনায় ভারতের রাজধানী দিল্লিতে চলন্ত বাসে ধর্ষিত হয়েছিল ২৩ বছর বয়সী এক মেডিকেল ছাত্রী। ভারতজুড়ে তখন তীব্র ক্ষোভে ছড়িয়ে পড়ে। নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রী পরে হাসপাতালে মারা যায়।