আজ সাবেক রাষ্ট্রপতি হোসনি মুবারকের অ্যাডভোকেট এক সাক্ষাত্কারে বলেছেন যে, তাঁর ৮৫ বছর বয়সের ক্লায়েন্টের জন্য আদালত জেলেই বসেছিল আর মুবারকের উপর থেকে দুর্নীতির অভিযোগ প্রত্যাহার করা হয়েছে.