প্রসঙ্গত, আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্যে বিদেশি কূটনৈতিক মিশনগুলোতে সম্ভাব্য সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে বলে যুক্তরাষ্ট্রের হুশিয়ারির পরই যুক্তরাজ্য এ সিদ্ধান্ত নেয়।

চলতি সপ্তাহে নিরাপত্তা হুমকির কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য ছাড়াও ইয়েমেনে বেশ কিছু পশ্চিমা দেশের দূতাবাস বন্ধ করে দেওয়া হয়।