নাম না জানানো এই মেয়েটি ব্রাজিল থেকে উড়ে এসেছে. এই ফ্লাইটে সে ছাড়াও আরও এক ৩৫ বছরের হংকংয়ের নাগরিকও ধরা পড়েছে, যার মালপত্রের মধ্যে ৪৮ কিলো কোকেইন ছিল. পুলিশ এখনও ধরতে পারে নি যে, এই দুজনের মধ্যে কোন যোগসাজশ রয়েছে কি না.

শুল্ক দপ্তরের ডিউটি অফিসার রাশিয়ার যুবতীকে গ্রেপ্তারের কথা সমর্থন করেছেন, কিন্তু এই বিষয়ে বিশদ করে বলতে অস্বীকার করেছেন.

যতটা মাদক ধরা পড়েছে সেই ৬০ কিলো কোকেইনের কালো বাজারে দাম সাড়ে সাত মিলিয়ন ডলার বলে জানানো হয়েছে, বলে ইতার-তাস সংস্থা খবর দিয়েছে.