পাক টেলিচ্যানেল ‘জিও টিভি’ প্রচার করেছে, যে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষীরা পরস্পরের অবস্থান লক্ষ্য করে কয়েকবার গুলি ছুঁড়েছে. ভারতীয় পক্ষ জানিয়েছে, যে গতরাতে কাশ্মীরের পাক-অধিকৃত এলাকা থেকে ইসলামি বিচ্ছিন্নবাদীদের সীমান্ত টপকে ভারতে অনুপ্রবেশের প্রচেষ্টা রোখা হয়েছে কেরান জনবসতি কেন্দ্রের কাছে. ভারতীয় সীমান্তরক্ষীরা গুলি চালিয়ে ২ জন সন্ত্রাসবাদীকে হত্যা করেছে. গত ৬ই অগাস্ট কাশ্মীরে সীমান্তের কাছে ৫জন ভারতীয় সীমান্তরক্ষী খুন হওয়ার পরিণতিতে গোটা সপ্তাহ জুড়ে উপত্যকায় প্রায়ই গোলাগুলি ছোঁড়া হচ্ছে.