যা আগে প্রস্তুত করেছিল কেন্দ্রের অপারেটর “টেপকো”. এ সম্বন্ধে জানিয়েছেন জাপান সরকারের প্রতিনিধি. পরিকল্পনা অনুযায়ী, বছরের শেষ দিকে কোম্পানির বিশেষজ্ঞরা এনার্জি-ব্লকের ভবনে বিশেষ জলাধারে রাখা ব্যবহৃত জ্বালানী-রডগুলি বার করা শুরু করবেন. তার পরে রিয়াক্টরের ভিতরের অংশে গলে যাওয়া জ্বালানী সরানোর প্রস্তুতি চালানো হবে. এ কাজটি ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ের জন্য পরিকল্পিত. আশা করা হচ্ছে যে, “ফুকুসিমা-১” পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের সম্পূর্ণ ডি-মন্টেজ কাজের জন্য অন্ততপক্ষে ৪০ বছর লাগবে.