যেখানে গত রাতে সামরিক ডকে নোঙর করা “সিন্ধুরক্ষক” নামে ডিজেল-চালিত সাবমেরিনে বিস্ফোরণ ঘটেছে.জানানো হয়েছে যে, বিস্ফোরণের পরেই সাবমেরিনে অগ্নিকাণ্ড ঘটে, যা ১৬টি দমকল ব্রিগেড নিভিয়েছে. বিস্ফোরণের পরে সাবমেরিনটি আংশিকভাবে ডুবে যায়. সাবমেরিনের কর্মীদের একাংশ সাবমেরিন ছেড়ে যেতে সক্ষম হয়, তবে তাতে আরও ১৮ জন নাবিক আটকে পড়ে থাকতে পারে. বিস্ফোরণের কারণ তদন্ত করা হচ্ছে. এ সাবমেরিনটি নির্মিত হয়েছিল ১৯৯৭ সালে, সম্প্রতি তা রাশিয়া থেকে ফিরেছিল, য়েখানে তার পরীক্ষা ও প্রযুক্তিগত সার্ভিসিং করা হয়. রাশিয়ার “জ্ভেজদোচকা” জাহাজ মেরামত কারখানায়, যেখানে এর মেরামত করা হয়েছিল, ভারতীয় পক্ষের তরফ থেকে কোনো নালিশ জানানো হয় নি মেরামতের কাজ সম্বন্ধে, জানিয়েছে রিয়া নোভস্তি সংবাদ এজেন্সি কারখানার প্রতিনিধির উদ্ধৃতি দিয়ে. সেই সঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন যে, “জ্ভেজদোচকা” জাহাজ মেরামত কেন্দ্রের আটজন কর্মীর একটি দল মুম্বাই বন্দরে রয়েছে, তবে বিস্ফোরণের পরে তাদের সাথে এখনও পর্যন্ত কোনো যোগাযোগ নেই.