রোববার ভোরে বোর্নো রাজ্যের দক্ষিণপূর্বে কোন্দুগা শহরে এ ঘটনা ঘটে। তবে এ প্রাণহানির ঘটনা নিয়ে নাইজেরিয়ার সরকারে পক্ষ থেকে কোন আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দেওয়া হয় নি। এখন পর্যন্ত কোন জঙ্গী সংগঠন এ হামলার দ্বায় স্বীকার করেনি।

যদিও ধারণা করা হচ্ছে উগ্রপন্থী দল বোকো হারাম এ হামলা চলিয়ে থাকতে পারে।

প্রসঙ্গত, বোকো হারাম দেশটির সরকারকে উৎখাত করে ইসলামি রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায়। জঙ্গী সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকে তাদের হাতে হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।

গত মে মাসে নাইজেরিয়ার সরকার উগ্রপন্থীদের মোকাবেলার জন্য উত্তরপূর্বাঞ্চলের তিনটি রাজ্য বার্নো, আগামাভা ও ইওবিয়েতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে।