এ সম্বন্ধে ঘোষণা করেছেন ইস্লামিক প্রজাতন্ত্র ইরানের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর অধিনায়ক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন জুলফাকার. সংবাদ এজেন্সি "ফার্স" জানিয়েছে যে, এই নতুন বিন্যাস কাজ করবে ইরানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাঠামোতে এবং তাতে সাতটি ওয়ার্কিং গ্রুপ থাকবে. ইরানের জন্য সীমানার নিরাপত্তার একটি মুখ্য সমস্যা হল – নার্কোটিকের চোরা-চালানের বৃদ্ধি.