“আমরা এক গুচ্ছ দলিল তৈরী করে রেখেছি, যাতে পরবর্তী অধ্যায়ে এগুলোকে উপস্থিত করা সম্ভব হয়, যখন আমাদের দুই দেশের রাষ্ট্রপতিরা দেখা করবেন, আর সেই দলিল গুলো তাঁদের সমর্থন পেতে পারবে”, - বলেছেন তিনি. মন্ত্রীর কথামতো, এখানে কথা অংশতঃ হচ্ছে, রাশিয়া ও আমেরিকার মধ্যে সর্ব ক্ষেত্রে সহযোগিতা ঘোষণা নিয়ে, আর তারই সঙ্গে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে আর্থ-বাণিজ্যিক সহযোগিতা বৃদ্ধি নিয়ে লক্ষ্য করে ঘোষণা.

“রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে স্বার্থের সংঘাত দুই দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতাকে নষ্ট করতে পারে না”, এই ভাবেই পশ্চিমের সংবাদ সংস্থা পররাষ্ট্র সচিব জন কেরির ঘোষণা উল্লেখ করে জানিয়েছে. “মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার মধ্যে সম্পর্ক খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও তাতে একই সঙ্গে সম্মিলিত স্বার্থের কথা উল্লেখ করা হয়েছে, আর কিছু সময়ে স্বার্থের বিরোধও”, - ঘোষণা করেছেন কেরি, ওয়াশিংটনের সম্মেলনের উদ্বোধন করতে গিয়ে.

“মস্কো তৈরী রয়েছে নিজেদের তরফ থেকে বিশ্ব নিরাপত্তা ও রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থায় স্বচ্ছতা সম্বন্ধে দুই রাষ্ট্রপতির সামনে প্রস্তাব করার জন্য, যখন তাঁদের এই দেখা হওয়া সম্ভব হবে, তখন”, - বলেছেন রাশিয়ার পররাষ্ট্র প্রধান সের্গেই লাভরভ. “স্ট্র্যাটেজিক আক্রমণাত্মক অস্ত্র নিয়ে আলোচনার শুরু থেকেই এই রকেট প্রতিরোধ ব্যবস্থা আমাদের আলোচনাতে সব সময়েই উপস্থিত হয়েছে. আর আমরা সন্তোষের সঙ্গেই লক্ষ্য করেছি যে, এপ্রিল মাসে রাষ্ট্রপতি পুতিনকে পাঠানো রাষ্ট্রপতি ওবামার বার্তায়, ওবামা স্বীকার করেছেন যে, বিশ্ব নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্নে সমস্ত ক্ষেত্রকেই আলোচনার মধ্যে আনার প্রয়োজন রয়েছে, কোন রকমের বাদ না দিয়েই, যা স্ট্র্যাটেজিক স্থিতিশীলতার উপরে প্রভাব ফেলতে পারে”, - বলেছেন লাভরভ. মন্ত্রী উল্লেখ করেছেন যে, “উত্তর আয়ারল্যান্ডে জি৮ শীর্ষ সম্মেলনেও মার্কিন ও রুশ রাষ্ট্রপতিরা দুই দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রীদের এই প্রসঙ্গে তাঁদের মতামত জানাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন. আমরা তৈরী ছিলাম এই জন্য প্রয়োজনীয় ধারণা দুই রাষ্ট্রপতিকে জানাতে, আর তা জানাবো, যখন এই শীর্ষ সম্মেলন হবে”, - বলেছেন লাভরভ.

লাভরভের কথামতো, স্বাক্ষরের জন্যও তৈরী হয়ে রয়েছে পারমাণবিক বিপদ কমানোর জন্য জাতীয় কেন্দ্র গুলির কাজ উন্নয়ন সংক্রান্ত সমঝোতা, মাদক বিপদকে মোকাবিলা করার জন্য পারস্পরিক সহযোগিতা বৃদ্ধি, বিজ্ঞান ও গবেষণার কাজে সহযোগিতা নিয়ে সমঝোতা এবং পারমাণবিক এবং জ্বালানী ক্ষেত্রে সহযোগিতা পত্র.