বলেছেন সিরিয়ার বিরোধী ও বিপ্লবী শক্তিগুলির জাতীয় কোয়ালিশনের প্রধান আহমেদ আল-জারবা. তিনি বলেন যে, স্বেচ্ছাসেবীদের গ্রহণ করা হবে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে ও উত্তরাঞ্চলে, যেখানে বাহিনীর কোষ-কেন্দ্র গঠিত হবে. তাঁর উক্তি উদ্ধৃত করেছে মিশরের “মেনা” সংবাদ এজেন্সি. তিনি ব্যাখ্যা করে বলেন যে, এমন বাহিনী বিদ্রোহীদের “ফিল্ড কম্যান্ডার এবং অন্য একসারি সমস্যা এড়াতে সাহায্য করবে”. জাতীয় কোয়ালিশনের প্রধানের কথায়, প্রথম পর্যায়ে বিরোধী বাহিনীর সৈন্য সংখ্যা হবে প্রায় ছয় হাজার. সিরিয়ায় বিদ্রোহী এবং সরকারী বাহিনীর মাঝে সঙ্ঘর্ষ চলছে প্রায় আড়াই বছর ধরে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের তথ্য অনুযায়ী, এ সময়ে সামরিক ক্রিয়াকলাপে প্রায় এক লক্ষ লোক নিহত হয়েছে.