“অহিংসার মতবাদ ও দর্শন মাফিক, গাঁধীর মতো মহাপুরুষের দৃষ্টিকোন থেকে যদি আপনার মনে হয় যে কোনো বেঠিক ও অন্যায় কাজ করা হচ্ছে, যদি তার প্রতিকারের জন্য আপনি বস্তাপচা আইনকানুন, রীতি, ঐতিহ্যের গন্ডী পেরোতে চান, তার মানে আপনার বিবেক আছে. আপনার অধিকার আছে ঐ সব আইনকানুন অগ্রাহ্য করার, তবে তার জন্য কড়ায়গন্ডায় মূল্য গুণে দিতে হবে আপনাকেই” – বলেছেন জর্জ ল্যুইস.

হোয়াইট হাউজের একান্ত ইচ্ছা থাকা সত্বেও কংগ্রেসে ভোটাভুটির সময় ল্যুইস ছিলেন সংখ্যাগরিষ্ঠ ডেমোক্র্যাট সদস্যদের একজন, যারা ইন্টারনেটে ও ফোনে আড়ি পাতার খাতে বাড়তি অর্থ বরাদ্দ করার বিপক্ষে ভোট দিয়ে সেই প্রচেষ্টা ভন্ডুল করে দিয়েছিলেন. তবে অন্যান্য ডেমোক্র্যাট সদস্যরা স্নোডেনকে ‘দেশদ্রোহী’ বলে আখ্যাত করছেন.