একইসঙ্গে তিনি বলেছেন, যে ইরানের প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্টের তরফ থেকে নিষেধাজ্ঞা কঠোরতর করা মনোযোগের অভাবের প্রমাণ দেয়. অভিষেক অনুষ্ঠানের পরে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে রৌহানি বলেছেন, যে তিনি ইরানের পারমানবিক প্রকল্পের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা করবেন না, কিন্তু এই ব্যাপারে পশ্চিমী দেশগুলির উত্কন্ঠাও প্রশমিত করতে চান.

তিনি বলেছেন, যে ইরানের জনগণ কোনোরকম টানাপোড়েন ছাড়াই গুরুত্ব সহকারে এই আলাপ-আলোচনায় বসতে প্রস্তুত, যদি আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতাকারী ছয় পক্ষ তার জন্য তৈরি থাকে.

রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, গ্রেট ব্রিটেন, ফ্রান্স, জার্মানী ও চীন হচ্ছে ঐ আন্তর্জাতিক ছয় পক্ষ.