তিনি এই সিদ্ধান্তের কারণ অথবা কোন দেশে তা করা হবে, সেই বিষয়ে কোন খবর দেন নি.

“আগামী সপ্তাহে বিবেচনা করা হবে, কয়েকটি দেশে বন্ধ থাকা রাষ্ট্রদূতাবাস ও কনস্যুল দপ্তর খোলা নিয়ে, তবে সম্ভবতঃ এই গুলিও আরও কিছু দিন বন্ধ থাকবে”, - হার্ফ বলেছেন বলে জানানো হয়েছে.