বলিভিয়া ও মেরকোসুর সংস্থার দেশ গুলি ইউরোপীয় দেশ গুলির পক্ষ থেকে বলিভিয়ার রাষ্ট্রপতি এভো মোরালেসের বিমান নিয়ে ঘটনার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা মেনে নিয়েছে আর নিজেদের রাষ্ট্রদূতদেরও ফেরত পাঠাচ্ছে, খবর দিয়েছে রয়টার সংস্থা, মোরালেসের ঘোষণাকে উত্স করে. তাঁর কথামতো, বলিভিয়া চারটি দেশের কাছ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা গ্রহণ করেছে – ফ্রান্স, স্পেন, ইতালি আর পর্তুগাল. মোরালেস যোগ করেছেন যে, তিনি এই দেশ গুলির সঙ্গে সম্মানজনক সম্পর্ক চালিয়ে যেতে ইচ্ছা রাখেন.

বেশ কিছু ইউরোপের দেশ ২রা জুলাই নিজেদের আকাশ সীমা ও বিমান বন্দর গুলি বলিভিয়ার রাষ্ট্রপতির বিমানের জন্য ব্যবহারের অনুমতি প্রত্যাহার করে নিয়েছিল. তাঁর বিমান ভিয়েনাতে নামতে বাধ্য হয়েছিল. এর কারণ হয়েছিল এমন এক ধারণা যে, তাঁর বিমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন গুপ্তচর বিভাগের কর্মী এডওয়ার্ড স্নোডেন থাকতে পারে, যাকে ওয়াশিংটন খুঁজছে. ইউরোপীয় দেশ গুলির এই কাজ লাতিন আমেরিকার দেশ গুলির পক্ষ থেকে খুবই তীক্ষ্ণ সমালোচনার উদ্রেক করেছিল.