সোমবারে ইউরোপীয় সঙ্ঘের পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রীদের সভা ২৮শে জুলাই মালির প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রথম দফায় রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ব্যবস্থা করাকে ও পরবর্তী অধ্যায়ে দেশে পার্লামেন্ট নির্বাচনের ব্যবস্থা করার জন্য অভিনন্দন জানিয়েছেন. ইউরোপীয় সঙ্ঘ এই দেশের এলাকার সমস্ত রাজনৈতিক দলকে সক্রিয়ভাবে নির্বাচনে অংশ নিতে আহ্বান করেছে, আর সমস্ত উদ্বাস্তু, দেশের ভিতরেই সরে যেতে বাধ্য হওয়া মানুষ ও দেশের বাইরে থাকা মালির নাগরিকদের প্রসারিত ভাবে এই নির্বাচনে অংশ নিতে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য বলেছে তাদের পক্ষ থেকে প্রকাশ করা এক বিজ্ঞপ্তিতে. এই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, মালির প্রশাসনের অনুরোধে ইউরোপীয় সঙ্ঘ এই নির্বাচনে পর্যবেক্ষক মিশন পাঠাবে. বিশেষ করে এখানে উল্লেখ করা হয়েছে মালির উত্তরের এলাকায় পর্যবেক্ষণের ব্যবস্থা করে দেওয়া নিয়ে অংশতঃ কিদাল এলাকায় ও উদ্বাস্তু ক্যাম্প গুলিতে.

ইউরোপীয় সঙ্ঘের সভা একই সঙ্গে রাষ্ট্রসঙ্ঘের তরফ থেকে এই দেশে মানবাধিকার রক্ষা মিশনের উপস্থিতি নিয়ে স্বাগত জানিয়েছে, তাছাড়া আফ্রিকা সঙ্ঘ ও একোভাস সংগঠনের পক্ষ থেকেও. তারা নিজেদের পক্ষ থেকে সকলেই সমর্থন জানিয়েছে ও মালি রাষ্ট্রকে এই প্রশ্নে আইন সঙ্গত না হওয়ার সম্ভাবনাকে সুযোগ না দিতে আহ্বান করেছে.