হোমস থেকে তার্তুস যাওয়ার পথের শহর এল-হোসন মুক্ত করার জন্য সামরিক বাহিনী আক্রমণ করেছে. সেই শহর দখলে রাখা জঙ্গীরা বাহিনীর চরম হুঁশিয়ারি অগ্রাহ্য করে অস্ত্র সম্বরণ করতে রাজী হয় নি. এর আগে জঙ্গী গোষ্ঠীর হাত থেকে তেল্ল- কালাহ শহর এই এল-হোসন শহর থেকে দশ কিলোমিটার দূরে জঙ্গী মুক্ত করা হয়েছে. তালবিস, রাস্তান, এল-গান্তু ও দের-এল-কেবির শহরে জঙ্গী গোষ্ঠীর উপরে রকেট আঘাত হানা হয়েছে. হোমস শহরে এখনও সশস্ত্র প্রতিরোধের জায়গা রয়েছে. বিরোধী ও বৈপ্লবিক শক্তির জাতীয় জোটের সামরিক বাহিনীর নতুন নেতা আহমেদ আস্সি ঝাবরা পশ্চিমের দেশ গুলি ও রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছ থেকে এই শহরে যুদ্ধ থামানোর আহ্বান করেছে, যেটি সিরিয়ার তৃতীয় বড় শহর.