×
South Asian Languages:
আমাদের সহযোগিতা, সেপ্টেম্বর 2011
রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে আজ থেকে শুরু হচ্ছে ভারতীয়  সংস্কৃতি উত্সব ।মস্কোতে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ
  বিশ্বের অর্থনীতিতে রাজনীতিজ্ঞদের দৃঢ়মন্যতার অভাব এবং পারস্পরিক আস্থার অভাব সংকটের কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে, এই মত ব্যক্ত করেছেন ক্রিস্টিন লাগার্ড. বিশ্ব অর্থনীতির অনির্দ্ধারনের পরিস্থিতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নেতাদের তিনটি প্রধান সমস্যার সমাধান করার জন্যে ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত. সমস্যাগুলি হচ্ছে – খুব বেশি ঋণের ভার, যা অর্থনীতির অগ্রগতি হ্রাস করে. বিশ্ব অর্থনীতির গোঁড়ায় অস্থিতিশীলতা এবং সামাজিক উত্তেজনার বৃদ্ধি.
বর্তমানে রাশিয়া ও ভারতবর্ষের সম্পর্কের মধ্যে প্যারাডক্স হল যে, সোভিয়েত দেশের সময় থেকেই সহযোগিতার এক বিশাল ক্ষমতা থাকা স্বত্ত্বেও আজও দুই দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক রাজনৈতিক সম্পর্কের স্তরে পৌঁছতে পারলো না. এই বিষয় নিয়ে মস্কোতে পঞ্চমবার আয়োজিত – রাশিয়া ও ভারতবর্ষ: বিশ্ব কাঠামোয় সহযোগিতা নামের বিতর্ক সভায় অংশগ্রহণকারীরা কথা বলেছেন.
১. ১৯৭০ এর দশকে পারমানবিক বিদ্যুত কেন্দ্রের কর্মীদের জন্য উপনগরী তৈরী করা শুরু হয়েছিল. আজ সেখানে রুশী বিশেষজ্ঞরা রয়েছেন, তাঁদের পরিবারের সঙ্গে. তাঁদের জন্য কাজ করার ও বিশ্রামের সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে. ফোটোতে - সাংস্কৃতিক কেন্দ্র. ২.
রাশিয়া প্রজাতন্ত্রের রাষ্ট্রপতির আফ্রিকা সংক্রান্ত প্রতিনিধি ও জাতীয় সভার আন্তর্জাতিক বিষয় পরিষদের সভাপতি মিখাইল মার্গেলভ মঙ্গলবার ১৩ই সেপ্টেম্বর নিকট প্রাচ্য ও আফ্রিকার কয়েকটি দেশে সফর শুরু করতে যাচ্ছেন. তাঁর লক্ষ্য – আরব বিশ্বের খবর একেবারে প্রাথমিক উত্স থেকে পাওয়া. রাশিয়ার এই দূতের সফরের মেয়াদ ছয় দিন. মিখাইল মার্গেলভ লেবানন, নাইজার, মালি, মৌরিতানিয়া ও মরক্কো যাবেন.
চলতি মাসের শেষ দিক থেকে রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে ভারতীয় লোক সংস্কৃতি উত্সব শুরু হতে যাচ্ছে।এ উত্সব আগামী ১৭ থেকে
রাশিয়ার যুদ্ধ-শিল্পয়ান প্রকল্পের রয়েছে যথেষ্ট ইতিবাচক ভাবমূর্তি।রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমীর পুতিন উরাল আঞ্চলের নিঝনেম তাগিলে(উরাল) সামরিক প্রযুক্তি বিষয়ক ৮ম
ভারত ও বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের স্বাভাবিকীকরণের দিকে গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছে. বিগত ১২ বছরের মধ্যে প্রথমবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহের ঢাকা সফর, সম্ভবতঃ, সেই বিষয়কেই সুবিধা করে দিয়েছে যে, হিম শীতল যুগ, যা দুই দেশের সম্পর্কের মধ্যে বিগত কিছু দশক ধরে তৈরী হয়েছিল, তা সব দেখে শুনে মনে হচ্ছে, এবারে অতীতে পরিনত হতে চলেছে.
লিবিয়ার সরকার ও ন্যাটো জোট, সম্ভবতঃ, মুহম্মর গাদ্দাফির খোঁজ নিয়ে প্রতিযোগিতা শুরু করেছে. বিদ্রোহীরা গাদ্দাফি অনুগতদের অধীকৃত শহর গুলি চষে ফেলছে আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উপগ্রহ ও চালক বিহীণ বিমান দিয়ে এই অদৃশ্য কর্নেলকে শিকারের কাজ করছে.    বিদ্রোহীরা মনে হচ্ছে, আস্তে আস্তে তাঁর চিহ্ণ হারিয়ে ফেলছে. তাদের কাছ থেকে গাদ্দাফির অবস্থান নিয়ে খবর আসছে পরস্পর বিরোধী.
আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2011
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2011
4
8
9
12
15
17
18
25
26
29