×
South Asian Languages:
আমেরিকা, সেপ্টেম্বর 2013

সিরিয়া সংকট নিরসণে অবদান রাখায় রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রনালয় থেকে শনিবার প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়।

দামাস্কাসের উপকন্ঠের উদ্দ্যেশ্যে রওনা হয়েছে জাতিসংঘের বিশেষজ্ঞরা সিরিয়ার সরকারের আবেদনের প্রেক্ষিতে জাতিসংঘের রাসায়নিক অস্ত্র বিষয়ক একটি পরিদর্শক দল দামাস্কাসের উপকন্ঠের একটি শহরের উদ্দ্যেশ্যে রওনা হয়েছে। রিয়া নোভাসতি শনিবার এ খবর জানিয়েছে।

সিরিয়া বিষয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের খসড়া সিদ্ধান্তে চুড়ান্ত মতৈক্যে পৌছেছে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভ গণমাধ্যমের কাছে এ কথা বলেছেন।

নিউইয়র্কে গত সপ্তাহের শেষে এক শিখ সম্প্রদায়ের প্রফেসরকে মারধর করার জন্য তা যেমন ভারতের শিখ সম্প্রদায়ের মধ্যে, তেমনই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শিখ সম্প্রদায়ের মধ্যে এক প্রতিবাদের বন্যা ডেকে এনেছে. কিন্তু এখানে সমস্যা যথেষ্ট প্রসারিত: এটা এক মর্মান্তিক ঘটনা – তা স্রেফ অনেক ঘটনার মধ্যে একটা, যা প্রমাণ করে দিচ্ছে যে, পশ্চিমের সমাজের পক্ষ থেকে প্রাচ্যের সভ্যতা ও বিশেষত্ব সম্বন্ধে সম্পূর্ণ রকমের অজ্ঞতা ও অবুঝ মনোভাবের পরিচয় প্রকট – আর তা শুধু আলাদা করে সমাজের নীচু তলার কয়েকজন বদমাশ লোকেরই নয়, বরং সমাজের উচ্চ মহলের প্রতিনিধিদেরও, এই রকম মনে করেন স্ট্র্যাটেজিক গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞ বরিস ভলখোনস্কি.

সন্ত্রাসবাদীদের কোন জাতি বা রাষ্ট্রীয় পরিচয় হতে পারে না. এটাই স্পষ্ট করে দেখিয়ে দিয়েছে কেনিয়ার নাইরোবি শহরে ওয়েস্টগেট নামের শপিং মলের সন্ত্রাসবাদী কাণ্ড. সেখানে সোমালির গোষ্ঠী, যাদের মধ্যে পশ্চিমের দেশের নাগরিকরাও রয়েছে, তারা নিরপরাধ লোকদের খুন করেছে ও বলেছে এটা কেনিয়ার সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার পরিচয়.

রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সের্গেই লাভরভ ও জন কেরি রবিবারে টেলিফোনে সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্রের উপরে আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে দ্বিপাক্ষিক সমঝোতা বাস্তবায়নের কাজকর্ম নিয়ে আলোচনা করেছেন. একই ধরনের কথাবার্তা মন্ত্রীদের মধ্যে এক সপ্তাহ আগেও হয়েছে. কিন্তু বিগত সময়ের মধ্যে বোঝা গিয়েছে যে, মস্কো ও ওয়াশিংটনের সিরিয়াতে কেন নিরস্ত্রীকরণের প্রয়োজন, তা নিয়ে ধারণা আলাদা.

সিরিয়ার সংকটকে মার্কিনীদের এক অর্থে কৃতজ্ঞতা জানানো উচিত। যদি সপ্তাহব্যাপী সিরিয়া সংকট নিরসণে বিশ্ব ব্যস্ত না থাকতো তাহলে হয়তবা পুনরায় স্নোডেনের গোপন তথ্যের আর্কাইভ নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হতো।

সিরিয়া মজুদ থাকা রাসায়নিক অস্ত্র ধংস করার ক্ষেত্রে বিন্দুমাত্র সময় অপচয় না করার আহবান জানিয়েছেন জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন। সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র ধংস করার কাজের পরিকল্পনা নিয়ে রাসায়নিক অস্ত্র নিরস্ত্রিকরণ কনভেনশেন সংস্থার ভারপ্রাপ্ত পরিষদের সাথে সাক্ষাতকালে জাতিসংঘ মহাসচিব এই আহবান জানান।

রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধ করণ সংস্থার কার্যকরী পরিষদ নিজেদের সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্র সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে প্রথম বৈঠক ২২শে সেপ্টেম্বর করতে চলেছে. এই বিষয়ে জানিয়েছে গাগ শহরে এই সংস্থার তথ্য দপ্তর. সিরিয়া সবচেয়ে কম সময়ে নিজেদের রাসায়নিক অস্ত্রের ও তা তৈরীর যন্ত্রপাতি নিয়ে সম্পূর্ণ রকমের হিসাব দিতে বাধ্য ও এই তথ্য সংস্থার কাছেই দিতে বাধ্য. ২৩শে সেপ্টেম্বর সোমবার এই সংস্থার বৈঠকের পরিণাম সংস্থার বৈঠকেই জানানো হতে চলেছে.

ইরাকের পার্লামেন্ট এক চিঠি তৈরী করছে নিজেদের দেশের পররাষ্ট্র দপ্তরের নামে, যাতে এই দপ্তরকে আহ্বান করা হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে সৌদী আরবের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা জারী করার দাবী জানানোর. এই বিষয়ে ইরাকের পার্লামেন্টের ক্ষমতাসীন জোটের প্রতিনিধি কাজীম আশ-শামরি জানিয়েছেন.

সকলে একই মাপ মতো বাঁচতে না পারলেও রুশ-মার্কিন আলোচনাকে ভরসাযোগ্য করে তোলাই জরুরী কাজ –  ভ্লাদিমির পুতিন

রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন মনে করেন যে, রাশিয়াও আমেরিকার মধ্যে পারস্পরিক ভাবে বিশ্বাসের সম্পর্ক তৈরী করা উচিত্. “আমাদের দরকার একত্রে আমেরিকার ও ইউরোপের লোকদের সঙ্গে ভরসাযোগ্য আলোচনার সম্পর্ক তৈরী করার, যাতে আমরা একে অপরকে শুনতে পারি ও যুক্তি বুঝতে পারি”, - বলেছেন রাশিয়ার নেতা আজ “ভালদাই” ক্লাবের আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক আলোচনা চক্রে যোগ দিতে এসে.

সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসাদ ঘোষণা করেছেন যে, সিরিয়া খুবই অটল ভাবে তৈরী রয়েছে নিজেদের রাসায়নিক অস্ত্রের ভাণ্ডার ধ্বংস করে ফেলার জন্য ও রাসায়নিক অস্ত্র নিষিদ্ধ করার কনভেনশনের সমস্ত ধারা কোন রকমের প্রাথমিক শর্ত ছাড়াই পালন করবে. আমেরিকার টেলিভিশন চ্যানেল “ফক্স নিউজ”-কে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে বাশার আসাদ উল্লেখ করেছেন যে, সিরিয়া এই কনভেনশনের সঙ্গে এক সম্পূর্ণ সদস্য হিসাবেই যোগ দিয়েছে ও তৈরী আছে নিজেদের অস্ত্র ধ্বংস করার জন্য যে কোন দেশকেই দিয়ে দিতে, তার মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও রয়েছে. সরকারীভাবে দামাস্কাস এই সংস্থার ১৯০তম সদস্য দেশ হবে ১৪ই অক্টোবর.

বুধবারে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ বলেছেন যে, সিরিয়াতে বিরোধী জঙ্গীরা নিয়মিত ভাবে প্ররোচনা দিয়েই চলেছে, যাতে দেশে সামরিক অনুপ্রবেশ ঘটে. তাঁর কথামতো, রাশিয়ার পক্ষ থেকে ২১শে আগষ্ট রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ যে, জঙ্গীরাই করেছে, সে বিষয়ে সিরিয়ার প্রশাসন থেকে দেওয়া তথ্য বিচার করে দেখা হবে. লাভরভ মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, এই মুহূর্তে দামাস্কাসে রয়েছেন রুশ উপ পররাষ্ট্র প্রধান সের্গেই রিয়াবকভ.

সিরিয়াতে বাশার আসাদের প্রশাসনের বিরোধী কোন ধর্ম নিরপেক্ষ দল আর বাস্তবে নেই এবং সেখানে এখন সমস্ত রকমের কট্টরপন্থী গোষ্ঠীরাই আসরে নেমে পড়েছে. তাদের মধ্যে সর্ব বৃহত্ গোষ্ঠী “আল- কায়দা” দলের সঙ্গে জড়িত. এই ধরনের সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন একটি সবচেয়ে প্রভাবশালী আন্তর্জাতিক সামরিক কারবার ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্যা নিয়ে গবেষণা কেন্দ্র – ব্রিটেনের Jane’s. এই কেন্দ্র সিরিয়ার পরিস্থিতি নিয়ে বিশ্লেষণ করে এক রিপোর্ট তৈরী করেছে, যা এই সপ্তাহের শেষেই প্রকাশিত হতে চলেছে. তার কিছু সিদ্ধান্ত এখনই গ্রেট ব্রিটেনের খবরের কাগজগুলোতে বেরিয়ে পড়েছে.

সিরিয়াকে ঘিরে পরস্পর বিরোধের কেন্দ্র এই সপ্তাহের মাঝামাঝি রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে সরে এসেছে. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও গ্রেট ব্রিটেন অল্প কিছুদিন আগে রুশ- মার্কিন সমঝোতা স্বত্ত্বেও আবার করে চেষ্টা করছে নিরাপত্তা পরিষদের ঘাড়ে একটা সিদ্ধান্তের বয়ান চাপিয়ে দিতে, যাতে সিরিয়ার উপরে আঘাত হানার পথ খুলে যায়. ওয়াশিংটন, প্যারিস ও লন্ডন ইতিমধ্যেই এই সিদ্ধান্তের বয়ান বানিয়ে ফেলেছে. তাতে দামাস্কাসের বিরুদ্ধে আঘাত হানার কথা থাকছে, যদি তারা রাসায়নিক অস্ত্র আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণে দিয়ে দেওয়ার বিষয়ে এমনকি একটা কোন পয়েন্টও মানতে আপত্তি করে. এই বয়ান রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে পেশ করার ধান্ধা করা হয়েছে সপ্তাহ শেষের আগেই.

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশ ও গোয়েন্দা বাহিনীর লোকরা এবারে ওয়াশিংটনের একেবারে কেন্দ্রে গণহত্যা নিয়ে তদন্ত করছে. “নেভি ইয়ার্ড” সামরিক নৌবাহিনীর নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে এই ট্র্যাজেডিতে নিহত হয়েছেন ১২ জন. পুলিশ আক্রমণকারীকে ধ্বংস করেছে. সেই লোকটি দেখা গিয়েছে যে, এক ৩৪ বছর বয়সী অসামরিক বিশেষজ্ঞ অ্যারন আলেক্সিস. প্রশাসন ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে যে, তারা আর কাউকে এখন খোঁজ করছে না ও চেষ্টা করছে অপরাধীর সম্ভাব্য উদ্দেশ্য নির্ণয়ের, যে এর আগে নিরাপত্তা পরিষেবার সমস্ত রকমের প্রয়োজনীয় পরীক্ষাই পার হয়ে এসেছিল. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে এই ঘটনা নিয়ে জানিয়েছেন “রেডিও রাশিয়ার” সাংবাদিক প্রতিনিধি রমান মামোনভ.

২১শে আগষ্ট দামাস্কাস উপকণ্ঠে স্নায়ু-বৈকল্যের গ্যাস জারিন ব্যবহারের প্রমাণ সমর্থিত হয়েছে রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিশেষজ্ঞদের রিপোর্টে. নীতিগত ভাবে এটা সেই রিপোর্ট বের হওয়ার আগেও স্পষ্টই জানা ছিল. তার ওপরে আবার এই রিপোর্টে সেই প্রশ্নের কোন উত্তর নেই যে, ঠিক কে এই রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে. কিন্তু তা স্বত্ত্বেও এখানে মনে করিয়ে দেওয়া হয়েছে সেই সমস্ত বাস্তব ঘটনা, যা এর জন্য সশস্ত্র বিরোধী পক্ষকেই সন্দেহ করতে বাধ্য করে. তবুও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, গ্রেট ব্রিটেন ও ফ্রান্স ইতিমধ্যেই নিজেদের পছন্দসই ভাবে এই রিপোর্টকে ব্যাখ্যা করে বসেছে, তারা ঘোষণা করেছে যে, এই তথ্য নাকি সিরিয়ার সামরিক বাহিনী যে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করেছে, তাই প্রমাণ করে.

ওয়াশিংটনে আজ নৌবাহিনীর এক দপ্তরে গুলি চালনার ফলে কম করে হলেও দশ জন নিহত হয়েছেন বলে শোনা যাচ্ছে, আর আহতও হয়েছেন অনেকেই. "রেডিও রাশিয়ার" মার্কিন রাজধানীর প্রতিনিধি খবর দিয়েছেন যে, আজ এখানে জনা তিনেক আততায়ী আক্রমণ করেছে.

গত শনিবারে রাশিয়ার পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রধান সের্গেই লাভরভ ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র সচিব জন কেরি সিরিয়ার প্রশ্নে সমঝোতায় পৌঁছেছেন. এই ঘটনার কল্যাণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আরও একটি যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ার হাত থেকে রেহাই পেয়েছে. মনে হতে পারে যে, আমেরিকার এবারে স্বস্তির নিশ্বাস ফেলার সময় হয়েছে. তার ওপরে আবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেশীর ভাগ জনগন, আর সেনেট সদস্যদের বেশীরভাগ, এমনকি স্বয়ং বারাক ওবামা, নিজের যুযুধান মন্তব্য স্বত্ত্বেও সিরিয়ার বিরোধে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে বিরোধী ছিলেন. কিন্তু এমন লোকও খুঁজে পাওয়া গিয়েছে, যাদের জেনেভার সমঝোতা পছন্দ হয় নি. তাদের মধ্যে দেখা গিয়েছে মস্কোর বহুদিনের সমালোচক ও রিপাব্লিকান দলের সেনেট সদস্য জন ম্যাককেইন রয়েছেন. তাঁর দৃষ্টিকোণ থেকে “কেরি-লাভরভের পরিকল্পনা” আমেরিকার দুর্বলতাকেই প্রদর্শন করেছে ও শুধু সেই দিকেই নিয়ে যাচ্ছে যে, বাশার আসাদ “শ্বাস ফেলার সময় পাবেন ও তারই সঙ্গে পরবর্তী কালে নিজের দেশের লোককে মেরে ফেলার সময় পাবেন”.

শনিবার জেনেভা আলোচনায় সিরিয়ার রাসায়নিক অস্ত্রের ওপর আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র মতৈক্যে পৌঁছেছে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরির সাথে বৈঠক শেষে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সেরগেই ল্যাভরোভ সাংবাদিকদের এ কথা জানিয়েছেন। গত কয়েকদিন ধরে সিরিয়ার ওপর মার্কিন সামরিক হামলা নিয়ে যে আশংকা করা হয়েছিল আশাকরা হচ্ছে এখন আর সেই হামলা হচ্ছে না।

আগের
1 2 3 4 5 6 7 8 9 10 11 12 13 14 15 16 17 18 19 20 21 22 23 24 25 26 27 28 29 30
সেপ্টেম্বর 2013
ঘটনার সূচী
সেপ্টেম্বর 2013
22
26
30