"সুখই সুপারজেট – ১০০" বা "SSJ – 100" এটি রাশিয়ার মাঝারি পাল্লার (আঞ্চলিক) যাত্রী বাহী বিমানের নাম, "সুখই অসামরিক বিমান নির্মাণ কোম্পানী" এটির স্রষ্টা, যে কোম্পানী "সুখই হোল্ডিং কর্পোরেশনের" অংশ. "সুখই সুপারজেট – ১০০" দুটি মডেলের বিমান, একটিতে ৭৮ ও অন্যটিতে ৯৮ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম. দুটি বিমানই সাধারন ৩০০০ কিলোমিটার পর্যন্ত দূরত্বের বা বাড়তি ৪৫০০ কিলোমিটার পর্যন্ত দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে এরকম ভাবে তৈরী করা সম্ভব. বিমানের মধ্যম গতিবেগ – ১০০০০ মিটার উচ্চতায় ঘন্টায় ৮৪০ কিলোমিটার. সবচেয়ে বেশী উঁচুতে ওঠার ক্ষমতা ১২৫০০ মিটার (৪০০০০ ফুট). বিমানে দুটি টারবাইন জেট রয়েছে, এটি তৈরী করেছে রাশিয়ার বিজ্ঞান প্রযুক্তি সংস্থা "সাতুর্ন" (শনি) ও ফরাসী কোম্পানী "স্নেসমা". প্রথম "সুখই সুপারজেট – ১০০" বিমান ২০১০ সালের ৪ঠা নভেম্বর উড়েছিল. এই বিমানটি আর্মেনিয়ার কোম্পানী "আরমাভিয়া" পাবে. দ্বিতীয় বিমানটি "এরোফ্লোট" কোম্পানী কিনছে, সেটি প্রথমবার উড়েছিল ২০১১ সালের ৩১শে জানুয়ারী. "আন্তর্প্রশাসনিক বিমান পরিবহন পরিষদ"(http://bengali.ruvr.ru/IAC) এই "সুপারজেট -১০০" বিমান গুলিকে স্বীকৃতী দিয়েছে ও বাণিজ্যিক ব্যবহার করার প্রস্তাব সমর্থন করেছে.

    এই বিমানের প্রতিযোগী ব্রাজিলের "এমব্রায়ের ই- জেট", "বমবার্ডিয়ের সি আর জে" – কানাডা, "এ আর জে ২১" (চিন, বর্তমানে পরীক্ষা করা হচ্ছে) ও "আন – ১৪৮" (ইউক্রেন – রাশিয়া যৌথ প্রকল্প), ব্যবহৃত হচ্ছে.