আঞ্চলিক আন্তর্জাতিক সংঘ, ২০০১ সালে চিন, রাশিয়া, কাজাখস্থান, তাজিকিস্থান, কিরগিজিয়া ও উজবেকিস্থান একত্রিত হয়ে সৃষ্টি করেছিল. উজবেকিস্থান ছাড়া বাকী দেশ গুলি "সাংহাই পঞ্চমে"র সদস্য হয়েছিলেন ১৯৯৬ – ১৯৯৭ সালেই, যখন থেকে স্থির করা হয়েছিল যে সদস্য দেশেরা সামরিক বিষয়ে একে অপরকে বিশ্বাস করবে এবং নিজেদের মধ্যে মধ্যের সীমান্ত থেকে সেনা কমাবে. ২০০১ সালে উজবেকিস্থান যোগ দেওয়ার পরে সংস্থার নাম পাল্টে দেওয়া হয়েছিল.

    সা স সংস্থার দেশ গুলি ইউরোএশিয়া অঞ্চলের শতকরা ৬০ ভাগ জমি জুড়ে রয়েছে (প্রায় ৩০ মিলিয়ন বর্গ কিলোমিটার). সর্বমোট জন সংখ্যা বিশ্বের একের চতুর্থাংশ (প্রায় ১ বিলিয়ন ৪৫৫ মিলিয়ন লোক. আর অর্থনৈতিক ভাবে চিন বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পরেই.

    সা স সংস্থা ন্যাটো জোটের মত সামরিক জোট নয়, এই সংস্থার মূল কাজ হল এই বিশাল এলাকাতে সন্ত্রাস কমানো, স্থিতিশীলতা  ও নিরাপত্তা বৃদ্ধি. বাকী সমস্ত রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে প্রসারিত ভাবে সহযোগিতা করা.