এখন মেদভেদেভার বয়স ৩৪-বছর. আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার প্রচুর অভিজ্ঞতা. ইনগা পৃথিবীর সেরা পাঁচজন প্যারা-অলিম্পিয়ানের অন্যতম. সেই ২০০২ সালে সল্টলেক সিটিতে ইনগা ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিল. এবার স্বভূমিতে স্বর্ণপদক জিততে ইনগা দৃঢ়প্রতিজ্ঞা. –

আমি মনে করি, যে আসল বিজয়টা এখনো সামনে. প্যারা-অলিম্পিকে এবং বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপে আমার ব্রোঞ্জ পদক আছে. কিন্তু আমি আরও উঠতে চাই. স্লালোম আমার প্রিয় আইটেম. এখনো আমি ঐ বিভাগে পদক পাইনি. স্লালোমে সত্যিকারের রেজাল্ট দেখাতে চাই.

যখন ইনগা মেদমেদেভার মাত্র ১১ বছর বয়স ছিল, তখন মালবাহী ট্রাক তার পা গুঁড়িয়ে দিয়েছিল. চিকিত্সায় কোনো ফল হয়নি, পা কেটে বাদ দিতে হয়েছিল. কিন্তু ইনগা ভেঙে পড়েনি, বরং আও দৃঢ়সংকল্প হয়ে উঠেছিল এবং ঠিক করেছিল, যে মাউন্টিং স্কি’র চর্চা চালিয়ে যাবে. মাত্র ৩ বছর বয়সে তার মা তাকে মাউন্টেন স্কি’র বিভাগে ভর্তি করেছিলেন.

১১ বছর বয়সে দুর্ঘটনার পরে আমার মা পেত্রোপাভস্কি- কামচাতস্ক শহরে খুঁজে বের করেছিলেন প্রতিবন্ধীদের জন্য মাউন্টেন স্কিয়িরের সেকশন. এবং আমি ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত ওখানে ট্রেনিং নিয়েছিলাম, আমি এমনকি রাশিয়ার জাতীয় প্রতিযোগিতায় পদক জিতেছি. ঐ বছরেই আমাকে ন্যাশনাল টীমে নেওয়া হয়েছিল. সেই থেকে আর সব কিছু সরে গ্যাছে, স্কিংই আমার জীবনে মুখ্য আকর্ষণ হয়ে দাঁড়িয়েছে.

১৯৯৮ সালে ইনগার জন্য সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক চ্যালেঞ্জ ছিল নাগানো অলিম্পিক, কিন্তু সেখানে সে ষষ্ঠস্থান অধিকার করেছিল. ৪ বছর পরে সল্টলেক সিটি থেকে সে কিন্তু ব্রোঞ্জ পদক জিতে নিয়ে এসেছিল. তখন সে পদক জিতেছিল বাধ্য হয়ে পুরুষদের স্কি প্যাড নিয়ে.-

তখন টীমটা সবেমাত্র গড়ে তোলা হচ্ছিল. ঘাটতি ছিল ড্রেসের. আর দ্রুতগামী ডিপিং আমরা একেবারেই প্র্যাকটিস করিনি. আমার ট্রেনার কার কাছ থেকে যেন চেয়ে নিলেন স্কি প্যাড, তাও আবার পুরুষদের মাপের. সেই স্কি প্যাডে চড়েই আমি ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছিলাম সেবার.

সোচি অলিম্পিকের ট্র্যাক ইনগা দুইবার পরখ করার সুযোগ পেয়েছে – ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশীপের একটি পর্বে এবং রাশিয়ার জাতীয় চ্যাম্পিয়ন প্রতিযোগিতায়. –

ট্র্যাক কোনোমতেই ইউরোপীয় মানের তুলনায় নীচুস্তরের নয় আর পরিকাঠামোর দিক থেকে ইউরোপকে অনেক পেছনে ফেলে দেবে.

ইনগা মেদভেদেভা তার সব বিজয় উত্সর্গ করে তার ছোট্ট মেয়েটির উদ্দেশ্যে. সোচি অলিম্পিকের পরে ইনগা তার স্পোর্টিং কেরিয়ারে ইতি টানতে চায় এবং যবনিকা টানতে চায় অলিম্পিকের স্বর্ণপদক দিয়ে.