প্রথম স্থান সর্বদাই মর্যাদাজনক, তবে এবারে এই বিজয়ের বিশেষ তাত্পর্য্যের কথা বলা যেতে পারে. মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটি প্রায় তিন হাজার প্রতিদ্বন্দীকে পেছনে ফেলেছে. বিশেষজ্ঞরা বিচার করেছেন যেমন শিক্ষায়তনটির সাইটের ঠিকানায় লেখা বার্তার সংখ্যা, তেমনই ইন্টারনেটে ঐ শিক্ষায়তন সম্পর্কে উল্লেখের সংখ্যা. মস্কো রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মুখ্য তথ্য-সচিব তাতিয়ানা ভিশনেভস্কায়া বলছেন, যে তাদের বিশ্ববিদ্যালয় একান্ত মনোযোগের সাথে নজর রাখে প্রকাশিত সমস্ত রেটিং তালিকার দিকে এবং সেই অনুযায়ী নিজেদের শোধরানোর চেষ্টা চালিয়ে যায় নিরন্তর, যাতে অন্যতম শীর্ষস্থান বজায় রাখা যায়. –

তাতিয়ানা ভিশনেভস্কায়া বলছেন – ওয়েবওমেট্রিক্সের রেটিং তালিকা বিশ্বের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মানের মূল্যায়ণের ক্ষেত্রে সবচেয়ে ধারভারসম্পন্ন চারটি রেটিং তালিকার অন্যতম. আমরা মনে করি, যে আমরা এই স্থান অধিকার করার যোগ্য. আমরা শিক্ষা পদ্ধতি ও বৈজ্ঞানিক গবেষণার ঐতিহ্যের বিকাশে নিরলস কাজ করি, বৈজ্ঞানিক গবেষনার নতুন নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন করি, শিক্ষাদানের প্রক্রিয়ায় নিত্যনতুন যুগোপযোগী আধুনিকীকরণ করি.

এই বছর আমরা আন্তঃবিভাগীয় কোর্স চালু করেছি, যেখানে আমাদের জগদ্বিখ্যাত অধ্যাপকদের লেকচারে উপস্থিত থাকার জন্য অন্য সব ফ্যাকাল্টির ছাত্রছাত্রীরাও নাম লেখাতে পারে.

চলতি শিক্ষাবর্ষে মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটি কয়েকটি সম্মানজনক রেটিং তালিকায় স্থান করে নিয়েছে. মার্চে এই বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বে সবচেয়ে মর্যাদাজনক টাইমস হায়ার এড্যুকেশনের শর্ট লিস্ট রেটিংয়ে স্থান পেয়েছে. আর মে মাসে খবর পাওয়া গেল, যে বিশ্বের সবচেয়ে অভিজাত ব্রিটেনের QS পৃথিবীর বিশ্ববিদ্যালয়গুলির মধ্যে সর্বশেষ ‘TOP-100’ তালিকায় মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটির তিন-তিনটি ফ্যাকাল্টিকে অন্তর্ভুক্ত করেছেঃ এ্যাপ্লায়েড ম্যাথামেটিক্স, ফিজিক্স ও এ্যাস্ট্রোনমি এবং বিদেশী ভাষা শিক্ষার ফ্যাকাল্টিকে.

প্রসঙ্গতঃ, খুব সম্ভবত শীঘ্রই রাশিয়ার উচ্চ শিক্ষায়তনগুলি ব্রিক্সের শিক্ষায়তনগুলির রেটিংয়ের তালিকার অন্তর্ভুক্ত হবে. সম্প্রতি এরকম রেটিং তালিকা প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে.