সিরিয়ায় কয়েক বছর ধরে চলা সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষের দরুণ দেশের অর্থনীতির ক্ষতি হয়েছে ৬ থেকে ৮ হাজার কোটি ডলার অর্থের. এই সংখ্যাটি দেশে সশস্ত্র সঙ্ঘর্ষ শুরু হওয়ার আগে দেশের মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদনের এক তৃতীয়াংশের সমান. সোমবার রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির বৈঠকে এ তথ্য দিয়েছেন সিরিয়ায় মানব অধিকার লঙ্ঘন তদন্ত সংক্রান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের কমিশনের প্রধান পাউলু পিনেইরু. তাঁর কথায় বর্তমানে “সিরিয়া স্বচ্ছন্দ পতনের অবস্থায় রয়েছে”. তিনি আন্তর্জাতিক জনসমাজকে আহ্বান জানিয়েছেন চূড়ান্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করার, যাতে সিরিয়ায় রক্তক্ষয় বন্ধ করা যায়, যার জন্য দায়িত্ব উভয় পক্ষেরই. সেই সঙ্গে, তিনি বলেন যে, চরমপন্থী দলগুলির সংখ্যা বেশি নয়, তবে তারা সক্রিয়ভাবে সিরিয়ায় সঙ্ঘর্ষে অংশগ্রহণ করছে. বিদ্রোহী দলগুলির সদস্যরা আলেপ্পো (খালেব), ডেইর-এজ-জোর ও রাকা প্রদেশে যথেচ্ছাচার করছে. ব্যাপক হত্যাকাণ্ড ও রক্তক্ষয়ী দমন চালানো হচ্ছে প্রতিদিন, এবং দোষীরা একেবারেই কোনো শাস্তি পাচ্ছে না.