রাশিয়া সিরিয়ায় মানব অধিকার বিষয়ক পরিস্থিতি তদন্ত সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক কমিশনকে অনুরোধ করেছে এ দেশের বিরুদ্ধে একতরফা নিষেধাজ্ঞা বাতিল করতে, যা সিরিয়ার জনগণের অবস্থার অবনতি ঘটাচ্ছে. এ সম্বন্ধে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির বৈঠকে বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন. তাঁর কথায়, মস্কো ভবিষ্যতেও কমিশনের সাথে তদন্ত সম্বন্ধে পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপ চালাতে প্রস্তুত, সিরিয়ায় তত্পর সশস্ত্র গ্রুপগুলির হিংসার শিকারদের সম্বন্ধে তথ্য যুগিয়ে. একই সঙ্গে তিনি কমিশনকে অনুরোধ করেছেন পরবর্তী রিপোর্ট নিয়ে কাজের সময় এবং সিরিয়ার বিরোধীপক্ষের সাথে যোগাযোগের সময় “মনোযোগের কেন্দ্রস্থলে রাখতে” আলেপ্পো-র দুজন মেট্রোপলিটান-কে মুক্ত করার কর্তব্যের প্রতি, যাদের জঙ্গীরা এ বছরের এপ্রিল মাস থেকে আটক করে রেখেছে. চুরকিন তাছাড়া অনুরোধ করেন খৃষ্টান এবং অন্যান্য সংখ্যালঘু – নৃকূলগত ও ধর্মগত সংখ্যালঘুদের দুঃখ-কষ্টের সমস্যার প্রতি মনোযোগ দিতে. কমিশনের পরবর্তী রিপোর্ট এ বছরের গ্রীষ্মকালে আশা করা হচ্ছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, সিরিয়া সঙ্ঘর্ষে এক লক্ষেরও বেশি লোক নিহত হয়েছে.