সিরিয়ার সামরিক বাহিনী “লাতাকিয়া- হালেব” (আলেপ্পো) যাওয়ার অতি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সড়ক যেখান দিয়ে গিয়েছে, সেই পাহাড়ী উপত্যকা নিজেদের দখলে রাখার জন্য প্রতিরক্ষা যুদ্ধ করে চলেছে. “সুরিয়া আল- এন” সংবাদ সংস্থার তথ্য অনুযায়ী মঙ্গলবারে সামরিক বাহিনীর উপরে জঙ্গীরা “ঝিসর এশ-শুগুর” শহরের কাছে চৌকীতে হানা দিয়েছিল. যুদ্ধের সময়ে ৫০ জনের বেশী সন্ত্রাসবাদী ভাড়াটে সেনা নিহত হয়েছে. টেলিভিশন সংস্থা “আল-ইখবারিয়া” খবর দিয়েছে যে, ইডলিব শহরের উপকণ্ঠে এরিখ সামরিক ঘাঁটির কাছে জঙ্গীদের আক্রমণ প্রতিহত করা সম্ভব হয়েছে. এই শহর গত আড়াই বছর ধরে একটানা যুদ্ধ চলার সময়ে কখনও সিরিয়ার সামরিক বাহিনীর প্রতিরক্ষার হাত থেকে বিরোধী জঙ্গীদের হাতে যায় নি. সরকারি বাহিনী একই সঙ্গে “ঝেভাত আন-নুসরা” ও “লিভা আখরার” নামের জঙ্গী গোষ্ঠীর যোদ্ধাদের উপরে আঘাত হেনেছে, যারা ইডলিব আক্রমণ করতে এসেছিল. যুদ্ধে বহু সংখ্যক জঙ্গীকে ধ্বংস করা সম্ভব হয়েছে ও তাদের সাঁজোয়া গাড়ী ও অন্যান্য যন্ত্র নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে.