জাপানে বিরোধী ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান সচিব গোসি হোসোনো রবিবার পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের নির্বাচনে পার্টির ভীষণ পরাজয়ের দায়িত্ব নিজের উপর গ্রহণ করে পদত্যাগ করেছেন. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার জানিয়েছে “এন.এইচ.কে” টেলি-কোম্পানি. হোসোনো পদত্যাগ-পত্র পেশ করেন পার্টির সভাপতি বানরি কাইয়েদা-র কাছে, পদত্যাগ গৃহীত হয়েছে. জাপানের ডেমোক্রেটিক পার্টি ক্ষমতাসীন হয় ২০০৯ সালের নির্বাচনে বিপুল জয়লাভের ফলে, আর তারপর গত বছরের শেষ দিকে ক্ষমতা হস্তান্তর করে সিন্দজো আবে-র নেতৃত্বে লিবেরাল-ডেমোক্রেটিক পার্টিকে. ডিসেম্বরে পার্লামেন্টের নিম্ন কক্ষের নির্বাচনে বিফলতার পরে, যার দরুণ জাপানে শাসন ক্ষমতার পরিবর্তন হয়, ডেমোক্রাট-রা গত রবিবার পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষের নির্বাচনেও ভীষণভাবে পরাজিত হয়: তারা পেয়েছে মাত্র ১৭টি আসন, অথচ লিবেরাল-ডেমোক্রেটিক পার্টি এবং “কোমেইতো” পার্টির কোয়ালিশন পেয়েছে ৭৬টি আসন. গোসি হোসোনো-কে জাপানের সবচেয়ে তরুণ ও পরিপ্রেক্ষিতপূর্ণ রাজনীতিজ্ঞ বলে বিবেচনা করা হয়, শিগগিরই তাঁর ৪২ বছর পূর্ণ হবে. ডেমোক্রাটদের সরকারে তিনি প্রধানমন্ত্রীর সহকারী, প্রতিবেশ সংরক্ষণ মন্ত্রী, পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে দুর্ঘটনার সমস্যা সংক্রান্ত মন্ত্রীর পদ অধিকার করেন.