রাশিয়ার ইন্টারনেটে চালু করা হল নতুন প্রোজেক্ট, যার নাম - 'বাটন টিপলেই গোটা তলস্তোয়'.  এর উদ্দেশ্য হল মহান রুশী লেখকের ৯০ খন্ড সম্বলিত রচনাবলী থেকে  যেন যে কোনো আগ্রহী পাঠক ডাউন লোড করে নিতে পারে তার পছন্দসই রচনা ইন্টারনেট থেকে. তলস্তোয়ের রচনাবলীর ডিজিট্যাল রূপ দেওয়ার কাজে মেতেছেন স্বেচ্ছাসেবীরা.

       লেভ তলস্তোয়ের জন্ম - ১৮২৮ সালে, মৃত্যু - ১৯১০ সালে. তলস্তোয় শুধু বিশাল সাহিত্যিক সম্পদই রেখে যাননি আমাদের জন্যে, তিনি একটা ধর্মীয় ধারারও জন্ম দিয়েছিলেন. 'হিংসার প্রতিরোধ কোরো না' - তার এই বাণী হৃদয়ঙ্গম করে মহাত্মা গান্ধী জন্ম দিয়েছিলেন তাঁর সুবিদিত অহিংস আন্দোলন ও সত্যাগ্রহের. লেভ তলস্তোয়ের জীবনধারণা মার্টিন লুথার কিংয়ের জীবনেও বিশাল প্রভাব ফেলেছিল.

       লেখকের যে দু'টো উপন্যাস গোটা বিশ্বকে নাড়িয়ে দিয়েছিল. সেই দু'টি হল - 'ওয়ার এ্যান্ড পীস' এবং 'আন্না কারেনিনা'.  তাছাড়াও তলস্তোয় লিখেছিলেন আরও অন্যান্য বহু উপন্যাস, বড় গল্প, ছোট গল্প, নাটক, রূপকথা, জীবনদর্শন ও ধর্ম নিয়ে প্রবন্ধ. ১৯৫৮ সালে খুব সল্প সংস্করণে তাঁর ৯০-তম রচনাবলী প্রকাশ করা হয়েছিল. তাই তলস্তোয়ের বংশধররা তাঁর রচনা ইলেকট্রনিক রূপে প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন. উপরন্তু স্বয়ং তলস্তোয় তাঁর উইলে লিখে গিয়েছিলেন, যে তাঁর রচনাবলী যেন বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়.

       পরিকল্পনা করা হয়েছিল, যে প্রথম কয়েকটি খন্ড ইলেকট্রনিক অবয়বে প্রকাশ করা হবে সেপ্টেম্বর নাগাদ. কিন্তু স্বেচ্ছাসেবকরা তলস্তোয়ের রচনাবলী নিয়ে এতই মোহিত হয়েছেন, যে প্রোজেক্ট চালু হওয়ার দশ দিনের মধ্যে তারা ৯০ খন্ড রচনাবলী পড়া শেষ করেছেন, আর তাই সংগঠকরা তাদের দ্বিতীয়বার সম্পাদনা করার খোলা ছাড়পত্র দিয়েছেন. সম্পাদনার কাজ কিভাবে এগোচ্ছে, তার প্রতি আপনারাও নজর রাখতে পারেন এই সাইটে -  www.readingtolstoy.ru