রুশ রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের প্রেস সচিব দিমিত্রি পেশকোভ বলেছেন, মার্কিন রাষ্ট্রপতি বরাক ওবামার রাশিয়া সফর স্থগিত করা সংক্রান্ত কোন তথ্য ওয়াশিংটনের কাছ থেকে মস্কো পায় নি। এর অর্থ হচ্ছে, সাবেক মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্নোডেনকে রাজনৈতিক আশ্রয় দেয়া নিয়ে মস্কো কি সিদ্ধান্ত নিবে তার ওপর যুক্তরাষ্ট্র নির্ভর করছে না। আশাকরা হচ্ছে, আগামী সপ্তাহে স্নোডেন মস্কোর শেরেমেতেয়েভো বিমানবন্দরের ট্রানজিট জোন ছাড়তে পারবেন যেখানে তিনি প্রায় ১ মাস ধরে অবস্থান করছেন।

বারাক ওবামার সফর প্রস্তুতির কাজ তা স্বাভাবিক গতিতেই হচ্ছে। একই সাথে তা আয়োজনগত ও কনটেন্টগত দিক দিয়ে। শুক্রবার সাংবাদিকদের দিমিত্রি পেশকোভ এ কথা বলেন। এদিকে এর ১ সপ্তাহ আগে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জেই কেরি ঘোষণা করেন, মার্কিন রাষ্ট্রপতি আসন্ন জি-২০ সম্মেলনে যোগদান করবেন। কয়েকটি রুশ গণমাধ্যমের সংবাদে রুশ-মার্কিন সংলাপে ফাটল ধরতে পারে বলে আশংকা খবর প্রকাশ করা হয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জি-২০ সম্মেলন যা আগামী সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে তাতে স্নোডেনের রাশিয়া আসার সিদ্ধান্ত কোন বিরুপ প্রভাব ফেলবে না। এমনটি মনে করছেন রাষ্ট্রবিজ্ঞানী লিউনিদ পালইয়াকোভ। রেডিও রাশিয়াকে তিনি বলেন, "সময়সীমা নিয়ে এখনো সুযোগ রয়েছে যাতে করে ওবামাকে অপ্রীতিকর পরিস্থিতিতে পরতে না হয়। কারণ হচ্ছে রাজনৈতিক আশ্রয় দেয়ার সিদ্ধান্ত ফেডারেল ইমিগ্রেশন সার্ভিস সর্বোচ্চ ৩ মাসের মধ্যে নিতে পারবে। আর তা শেষ হবে অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি সময়ে। আর যদি এখন মূল ভাবনা পিটার্সবার্গের জি-২০ সম্মেলন নিয়ে তাহলে সিদ্ধান্ত নিতে দেরী করা হবে। মূলত, স্নোডেন রাষ্ট্রীয় গোপন তথ্য ফাঁস না করার প্রস্তাবে রাজি হয়েছে এবং আমি মনে করি রাশিয়া তাকে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রদান করবে। এটি একদম সাধারণ ঘটনা।"

উল্লেখ্য, রাজনৈতিক আশ্রয় পাওয়া ও সাময়িক অবস্থানের অনুমতি দেয়ার মধ্যে মূল পার্থক্য হচ্ছে আবেদন করার ধরণ এবং তা যাচাই-বাচাই করার সময়সীমা।

স্নোডেন গত ১৬ জুলাই রাশিয়ার ফেডারেল ইমিগ্রেশন সার্ভিস বরাবর রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়ে আনুষ্ঠানিক আবেদন করেছেন। ধরণা করা হচ্ছে আগামী ২৪ জুলাই বুধবার তিনি ফলাফল পাবেন। এ বিষয়ে জানিয়েছেন স্নোডেনের আইনজিবী আনাতোলি কুচেরেনা। তিনি জানান, স্নোডেন হয়তবা রুশ নাগরিকত্ব চেয়ে আবেদন করতে পারেন।

অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করছেন, স্নোডেনের পরবর্তি পদক্ষেপ হবে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রার্থনা করা। রাশিয়ার আইন অনুযায়ী স্নোডেন মার্কিন সরকারের কাছে ফেরত দেওয়া থেকে রক্ষা পাবেন। রেডিও রাশিয়াকে এ নিয়ে মতামত জানিয়েছেন আরেক রুশ রাষ্ট্রবিজ্ঞানী সের্গেই মিখেভা। তিনি বলেছেন, "স্নোডেন মাতৃভূমিতে ফিরে যাবেন না কারণ সেখানে তার জন্য কোন সত্য প্রকাশের সুযোগ দেওয়া হবে না। মার্কিনীরা অন্য দেশের নাগরিকদের মানবাধিকার রক্ষা করতে অনেক ভালবাসেন কিন্তু নিজেদের দেশে এক্ষেত্রে তাঁরা কোন ছাড় দেয় না। স্নোডেন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে এখন বিশ্বাসঘাতক বলে পরিচিতি লাভ করেছে। মার্কিনীদের জন্য এ পরিস্থিতি তাদের পররাষ্ট্রনীতিতে একটি বড় ব্যর্থতা ঘটিয়েছে। একজন স্নোডেনের কাছে নিরুপায় পুরো যুক্তরাষ্ট্র। প্রকাশ্যে সাঁজা দিতে তাদের এখন স্নোডেনের প্রয়োজন যাতে অন্যরা এ থেকে শিক্ষা পায়।"

এদিকে সিনেটারদের একটি পক্ষ সোচিতে শীতকালিন অলিম্পিক বয়কটের আহবান জানিয়েছেন। তবে এর চরম সমালোচনা করেছেন স্বয়ং বিখ্যাত রুশবিরোধী রিপাবলিকান সেনাটর জন ম্যাক্কেইয়ন। তিনি অলিম্পিক বয়কটের এই প্রস্তবকে গত শতাব্দীর আচরণ বলে উল্লেখ করেন।

তবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ভবিষ্যতের জন্য গোঁপন তথ্য পুনঃনিরীক্ষার সম্ভাব্য নিয়মনীতি তৈরী করবে।