গতকাল স্কুলের মধ্যাহ্নে বিষাক্ত খাবার খেয়ে ২২ জন শিশু কিশোরের মৃত্যু হয়েছে বিহারে. এই কারণে প্রথম যে ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, সে এক কর্মচারী, যে এই খাবার নিয়ে এসেছিল ও সেই স্কুলের ডিরেক্টর, যিনি তার ছাত্রদের শরীর খারাপের খবর পেয়েই পালানোর মতলব করেছিলেন. প্রায় তিরিশজন স্কুল পড়ুয়া এখনও হাসপাতালে রয়েছে. তাদের মধ্যে অনেকেরই অবস্থা গুরুতর. বিহারে এই ধরনের বিষাক্ত খাবার খেয়ে মৃত্যুর ঘটনায় রাজ্য জুড়ে গণ প্রতিবাদ শুরু হয়েছে. বিক্ষুব্ধ জনতা পুলিশের গাড়ী ও বাস ভেঙে দিয়েছে. তারা একই সঙ্গে রাজ্য প্রশাসনের পদত্যাগের দাবী করছে. গরীব পরিবারের সাহায্যের জন্য এই খাবার স্কুলে সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী দেওয়া হয়ে থাকে. এই খাবারে খুবই মারাত্মক বিষাক্ত কীটনাশক শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে.