মিশরের নতুন সরকার শপথ গ্রহণ করে কাজে যোগ দিতে পারে মঙ্গলবার অথবা বুধবার, “আল-জাজিরা” স্পুতনিক টেলি-চ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী হাজেম আল-বিবলিয়াউই. তিনি যোগ করে বলেন যে, মন্ত্রী পরিষদের সামনে রয়েছে অতি জটিল কর্তব্য, বিশেষ করে জাতীয় আপোষ, নিরাপত্তা, অর্থনীতি এবং পার্লামেন্ট ও রাষ্ট্রপতির নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি. সাময়িক মন্ত্রী পরিষদ প্রধাণত গঠিত হবে টেকনোক্র্যাট ও লিবরালদের নিয়ে, যারা প্রধানমন্ত্রীর মতে, “পথ-মানচিত্রের” কর্তব্যগুলি ভালভাবে সামলাতে পারবে. তবে, ইস্লামপন্থীরা সরকারে অংশগ্রহণ করবে না. স্বাধীনতা ও ন্যায়ের পার্টি (“ভাই মুসলমান”) এবং সৃষ্টি ও বিকাশের পার্টি (“আল-গামাআ আল-ইস্লামিয়া”) অংশগ্রহণ করতে অস্বীকার করেছে রাষ্ট্রপতি মুহাম্মেদ মুর্সি-কে অপসারণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ স্বরূপ. সেনাবাহিনীর “পথ মানচিত্র” গ্রহণ করা মিশরের সালাফাইটদের পার্টি “আন-নুর” সম্প্রতি ঘোষণা করেছে যে, নতুন সরকারের প্রতি বিশ্বাস নেই এবং তার পতনের অপেক্ষা করছে. মিশরের প্রচার মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত সমস্ত মন্ত্রী পদ ইতিমধ্যে নির্ধারিত হয়েছে.