রুশ প্রজাতন্ত্রের সামরিক বাহিনীর আচমকা মহড়ায় পূর্বের সামরিক এলাকা ও কেন্দ্রীয় সামরিক এলাকার বাহিনীকে সম্পূর্ণ রকমের সামরিক প্রস্তুতি নিয়ে তৈরী করা হয়েছে. এই বিষয়ে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শইগুর কাছে রিপোর্ট পেশ করেছেন সামরিক বাহিনীর কেন্দ্রীয় দপ্তরের প্রধান ভালেরি গেরাসিমভ শনিবারে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ দপ্তরে. তিনি জানিয়েছেন যে, আগে দেওয়া নির্দেশ অনুযায়ী ৬৪ নম্বর আলাদা সাঁজোয়া ব্রিগেড পূর্ব সামরিক এলাকায় সামরিক প্রস্তুতি পরীক্ষা করে দেখছে. এই ব্রিগেড নতুন করে গোষ্ঠী তৈরী করা নিয়ে সাখালিন এলাকার উস্পেনোভস্কি সামরিক ঘাঁটিতে কাজ করছে. সামরিক বাহিনীকে পাঠানো হচ্ছে রেল পথে, বিমানে ও জলপথে.

গেরাসিমভ একই সঙ্গে রিপোর্ট করেছেন যে, রাশিয়ার নৌবহরের প্রশান্ত মহাসাগরীয় বাহিনী সাখালিন দ্বীপে আলাদা ১৫৫ নম্বর সাঁজোয়া বাহিনীকে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছে. আনিভ উপসাগর হয়ে অসল্যাব্যা ও নিকোলাই ভিলকভ নামের দুটি বিশাল সামুদ্রিক পদাতিক বাহিনীর জাহাজ এই দলের দুটি বাহিনীকে নিয়ে চলেছে.

0কেন্দ্রীয় সামরিক এলাকার পরীক্ষা করে দেখার পরিকল্পনা অনুযায়ী সংযুক্ত স্ট্র্যাটেজিক নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের সহায়তা মূলক কেন্দ্র সামরিক- পরিবহন বিমানে করে এই প্রশিক্ষণের এলাকা বৈকাল পারের এলাকায় শুগোল ঘাঁটিতে পাঠানো হচ্ছে. বর্তমানে আলাদা ৭৪ নম্বর সাঁজোয়া বাহিনীকে চারটি সামরিক পরিবহন ব্যবস্থার মাধ্যমে প্রশিক্ষণের জায়গায় নিয়ে আসা হচ্ছে, বলে রিপোর্ট করেছেন কেন্দ্রীয় দপ্তরের প্রধান.