মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে করা ঘোষণা যে, রাশিয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের পক্ষ থেকে সিরিয়াতে পৌঁছনোর পথ বন্ধ করে রেখেছে, যাতে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের সমস্ত প্রমাণ নিয়ে তদন্ত করা সম্ভব হয়, সেটা বাস্তব সম্মত নয়. এই নিয়ে বৃহস্পতিবারে সাংবাদিকদের সামনে রুশ প্রজাতন্ত্রের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রসঙ্ঘে স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন ঘোষণা করেছেন. কূটনীতিবিদের মন্তব্য সেই ঘোষণার প্রত্যুত্তরেই করা হয়েছে, যা আমেরিকার পররাষ্ট্র দপ্তর থেকে করা হয়েছে. চুরকিন যোগ করেছেন যে, রাষ্ট্রসঙ্ঘের পর্যবেক্ষকদের সিরিয়াতে রাসায়নিক অস্ত্র নিয়ে তদন্ত করতে যেতে দেওয়া হবে কি না, সেই সিদ্ধান্ত রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ নিতে পারে না, নেবে দামাস্কাস. তিনি উল্লেখ করেছেন যে, রাশিয়া রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী প্রতিনিধিদের কাছে সিরিয়াতে জঙ্গীরা যে এই ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করেছে, তার প্রমাণ পেশ করেছে. এর আগে মহাসচিবের কাছে রাশিয়ার বিশেষজ্ঞদের রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে, যাঁরা প্রমাণ করে দিয়েছেন যে, আলেপ্পো শহরের উপকণ্ঠে বিরোধী পক্ষের তরফ থেকে জারিন গ্যাস ব্যবহার করা হয়েছিল.