চেন্নাই: পারমাণবিক শক্তির বিরোধী কর্মী এবং গ্রাম বাসীদের বিক্ষোভের মধ্যে অনেক বিলম্বের পরে, কুদানকুলাম প্রকল্প এবারে তৈরী হয়েছে চালু হওয়ার জন্য.
আণবিক শক্তি নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের থেকে (AERB) কুদানকুলাম পারমাণবিক শক্তি প্রকল্পের প্রথম এক হাজার মেগা ইউনিটের জন্য ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে.
বৃহস্পতিবার একটি AERB প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সুপ্রিম কোর্ট সব নির্দেশ মেনে নিয়ে পরীক্ষা করে এই ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে. এই বছরের ৬ই মে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিভিন্ন শর্ত আরোপ করা হয়েছিল.
"আমরা এক নম্বর ইউনিটের ব্যাপারে এই কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের দ্বারা পূরণ করা নিরাপত্তা ও অন্যান্য আবশ্যক পরিমাপ সম্বন্ধে সন্তুষ্ট হয়েছি. শুধুমাত্র কয়েকটি পরীক্ষার পর এবং এই কেন্দ্রের কর্মকর্তারা সুপ্রিম কোর্টের আদেশ মেনে নেওয়ার পরে, পরে আমরা ছাড়পত্র দিয়েছি," AERB প্রধান, এস. এস. বাজাজ, জানিয়েছেন ভারতের টাইমস অফ ইন্ডিয়া পত্রিকাকে.
এবারে কেন্দ্রের কর্মসূচী অনুযায়ী, এক বা দুই দিনের মধ্যে (পারমানবিক চুল্লিতে চেইন রিয়্যাকশন প্রকৃত ভাবে শুরু হওয়ার পরে) এই কেন্দ্র উত্পাদনে সক্ষম হবে, বলে কেন্দ্রের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন. এটিতে একবার চেন রিয়্যাকশন ক্রিটিক্যাল স্টেজে পৌঁছলে বিদ্যুত সরবরাহ শুরু করে দেওয়া হবে.
তামিলনাডু রাজ্য এই প্রথম ইউনিট থেকে তাদের জন্য অতি প্রয়োজনীয় সাড়ে চারশো মেগাওয়াট বিদ্যুত পেতে শুরু করবে. এই রিয়্যাক্টর তার অর্ধেক ক্ষমতায় পৌঁছলে সরবরাহ শুর করে দেওয়া হবে কেন্দ্রের কর্তারা জানিয়েছেন.
এই (VVER) রিয়্যাক্টর ও এনার্জী ব্লক রাশিয়াতে তৈরী এতে উচ্চ চাপের জল প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়. ভারতে এই ধরনের রিয়্যাক্টর এই প্রথম চালু করা হচ্ছে.