সিরিয়ায় কাজ করা রাশিয়ার বিশেষজ্ঞরা নির্ধারণ করেছেন যে, সিরিয়ার আলেপ্পো প্রদেশে ব্যবহার করা রাসায়নিক অস্ত্র শিল্পভিত্তিক উত্পাদন ছিল না. সম্ভবত, জারিন হাত-বোমা ব্যবহার করেছিল বিদ্রোহীরা, মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি ভিতালি চুরকিন. তাঁর কথায়, খান আল-আস্সালে বিস্ফোরিত গোলা তৈরি করে থাকতে পারে “বাশাইর আল-নাস্র্” গ্রুপের বিদ্রোহীরা, যারা সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি বাশার আসদের শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালাচ্ছে. জানানো হয়েছিল যে, ২০১৩ সালের মার্চে আলেপ্পো প্রদেশের খান আল-আস্সাল বসতি-কেন্দ্রের অঞ্চলে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহৃত হয়েছিল, যার ফলে নিহত হয়েছিল ২৬ জন এবং বহু লোক আহত হয়েছিল.